শিরোনাম


Spread the love

স্টাফ রিপোর্টারঃ

উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় সুনামগঞ্জের ভর্তির লটারি সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা থেকে বেলা ২ টা পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলে। লটারি কার্যক্রম সরাসরি থেকে পর্যবেক্ষণ করেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আসিফ আল জিনাত।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম, প্রধান শিক্ষক নাসিমা রহমান সহ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যগণ, শিক্ষকবৃন্দ, অভিভাবক প্রতিনিধি ও মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে পুরো লটারি কার্যক্রম উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় সুনামগঞ্জের ফেইসবুক পেইজ থেকে লাইভ সম্প্রচার করা হয়। পুরো ভর্তি কার্যক্রম সকল আমন্ত্রিত অতিথি ও অভিভাবকেদর সামনেই সম্পন্ন হয়। বেলা আড়াই টায় লটারিতে বিজয়ী ক্রমিক নাম্বারগুলো বিদ্যালয়ের নোটিশবোর্ডে প্রকাশ করে মনোনয়ন বোর্ড। বিরতিহীনভাবে চলা সকল কার্যক্রম শেষ করে বিদ্যালয় ত্যাগ করেন সহকারী কমিশনার আসিফ আল জিনাত।


এর আগে ভর্তির লটারি উদ্বোধন ঘোষণা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সহকারী শিক্ষক মো. শাহজাহান মিয়ার সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসিমা রহমান। ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর ক্রমিক নাম্বার তুলে লটারির কার্যক্রম শুরু ও নবম শ্রেণীর আরেক ছাত্রীর ক্রমিক নাম্বার তুলে লটারি কর্মসূচির সমাপ্তি টানেন প্রধান অতিথি সহকারী কমিশনার আসিফ আল জিনাত।


প্রভাতী ও দিবা দুই শিফটে ৮৫০ জনের আবেদন এর বিপরীতে ষষ্ঠ শ্রেণীতে চারশত, সপ্তম শ্রেণীেতে ১০ জন, অষ্টম শ্রেণীতে ২০ জন এবং নবম শ্রেণীতে ৯০ জন ছাত্রী উত্তির্ণ হয়।


ভার্তির লটারি কার্যক্রমে যুক্ত ছিলেন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোছাম্মৎ তাসনিম বেগম, মো. শাহজাহান মিয়া, মুন্নি বেগম, সানজিদা আখতার, মো. মাহবুব আলম, হেমন্ত বিশ্বাস, রিংকু কুমার কর, ফারজানা সুমি, দিপু কান্তি দেব,চম্পক চক্রবর্তী, চয়ন চক্রবর্তী প্রমুখ।

শান্তিবার্তা ডটকম/১৪ জানু ২০২১ খ্রী./