শিরোনাম
  বিধি-নিষেধ শিথিলতার মেয়াদ আর বাড়ছে না,চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত       জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাকিবের ব্যাটে বাংলাদেশের সিরিজ জয়       মাগুরায় সরকারি ভাতাভোগীর টাকা অন্যের মোবাইলে       অ্যাডভোকেট শফিকুল আলমের মৃত্যুতে পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক       পল্লীবন্ধু হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল       পাগলা বাজারে মনসুর ফ্যাশনের উদ্বোধন       নরসিংদীতে কাভার্ডভ্যান-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৬       মেসেঞ্জারে ঢাবি ছাত্রীকে হেনস্তা, তদন্ত কমিটি গঠন       সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত       ইভ্যালি’র কার্যালয়ে তালা, হটলাইনেও মিলছে না সাড়া!    


Spread the love

স্টাফ রিপোর্টারঃ
দিরাই পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে দিরাইয়ে চলছে নির্বাচনী উৎসব। মেয়র পদে আট জন প্রতিদ্বন্ধীতা করলেও ভোটাররা মনে করছেন ভোটের লড়াই হবে ত্রিমূকী।

আওয়ামী লীগ মনোনীম মেয়র প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায়ের নৌকা, বিএনপি মনোনীত ইকবাল হোসেন চৌধুরীর ধানের শীষ এবং সতন্ত্র প্রার্থী দিরাই পৌর সভার মেয়র মোশারফ মিয়ার জগ প্রতীক নিয়ে ভোটাররা মেতে উঠছেন নির্বাচনী উৎসবে। মূল প্রতিদ্বন্ধীতা হবে এই তিন প্রার্থীর মধ্যে।


জানা যায়, দিরাই পৌরসভার সাধারণ মানুষ তাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে প্রশাসনের কাছে সুষ্টু নির্বাচন দাবী করে বলেন, দিরাই পৌরসভার বয়স ২১ বছর হলেও উন্নয়ন তেমন হয়নি। বর্তমানে ৮ প্রার্থীর মধ্যে যিনি রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা, নিরাপদ পানির ব্যবস্থা, বেকারত্ব দূরীকরণে কার্যকর পদক্ষেপ নিবেন তাকেই ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচিত করবেন। দিরাই পৌরসভা ১৭টি গ্রাম নিয়ে গঠিত হয়। পৌরসভায় বর্তমান ভোটার ২১ হাজার ৩ শ ৭৯ জন। তম্মধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ৫৫২ নারী ১০ হাজার ৮২৭।


ইতোমধ্যে সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ দিরাই পিএফজির উদ্যোগে আয়োজিত “সুষ্ট নির্বাচনের দাবিতে প্রশাসন ও রাজনীতিবিদদের মধ্যে গোল টিবিল বৈঠকে’ বড় দু দলের মেয়র প্রার্থী উপস্থিত হয়ে ঘোষণা দিয়েছেন সুষ্ট নির্বাচন হলে তারা ভোটারদের রায় মেনে নিয়ে একে অপরকে অভিনন্দন জানাবেন।


দিরাই পৌর সভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায়ের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন, সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন সফিক, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য আজিজুস সামাদ ডন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবির ইমন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক অ্যাডভোকেট রঞ্জিত সরকার, ল্ডন থেকে নির্বাচনী গণসংযোগে অংশ নিতে দেশে এসেছেন দিরাই পৌর সভার সাবেক মেয়র এবং দিরাই পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান বুলবুল সহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতা কর্মীরা দিন রাত নৌকার পক্ষে কাজ করছেন।


অপর দিকে বিএনপি মনোনীত মেয়রে প্রার্থী অ্যাডভোকেট ইকবাল হোসেন চৌধুরীর পক্ষে কাজ করছেন দিরাই-শাল্লার সাবেক এমপি, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সসদস্য নাছির উদ্দিন চৌদুরী, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি নাদের আহমদ, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইমলাম নুরুল, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম কামরুল সহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতা কর্মীরা পৌর সদরের ভোটারদের দ্বাদ্বোরে ঘুরছেন।
সতন্ত্র প্রার্থী দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক, দিরাই পৌর মেয়র মোশারফ মিয়া পৌর সদরের ভোটারদের নিয়ে দিনরাত গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।মোশারফ মিয়ার ২৫ ডিসেম্বরের গণ মিছিল দেখে অনেকে মন্তব্য করছেন কেন্দ্র, জেলা ও উপজেলা নেতাদের চেয়ে বেশীজমজমাট মোশারফ মিয়ার গণ সংযোগ।
জাতীয় পার্টি ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রার্থীর পক্ষে কেন্দ্রীয় নেতারা দিরাই উপজেলা সদরে অবস্থান করে নির্বাচনী গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। বসেনেই সতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাইয়ূম, রশিদ মিয়া ও সফিক মিয়া।
আওয়ামী লীগ মেনানীত প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায় বলেন, মানুষ উন্নয়নে বিশ্বাসী উন্নয়নের স্বার্থে শেখ হাসনার নৌকায় ভোট দিয়ে আমাকে তারা দিরাই পৌল সভার মেয়র নির্বাচিত করবেন।


বিএনপি প্রার্থী অ্যাডভোকেট ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ভোটের তারিখ যত ঘনিয়ে আসছে ভোটারদের মনেতত সন্দেহ বাড়ছে। ৩০ ডিসেম্বরের মতো ভোটাধিকার চিনতাই করা হয় কি না। যদি পৌর বাসী সুষ্টভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন তাহলে ধানের শীষের বিজয় সুনিশ্চত।
সতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ মিয়ার বলেন, শেখ হাসিনার সরকার সুষ্ট নির্বাচনে বিশ্বাসী। শেখ হাসিনার সরকার দিরাই পৌর সভায় উন্নয়ন কাজ বস্থবায়নত করছে। অসাপ্ত উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করতে দিরাই পৌর বাসী আমাকে আবার মেয়র নির্বাচিত করবেন।

শান্তিবার্তা ডটকম/২৬ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রী.