শিরোনাম


বিশেষ প্রতিনিধিঃ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে খারাপ লেখা ও পোস্ট দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি কলসুমা আক্তার রীনা চৌধুরী। এমনকি তাকে ও তার ভাইকেও অজ্ঞাত দুষ্কৃতিকারীরা প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ তার।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) দুপুরে সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে কুলসুমা জানান, আমি শাহপরান থানার মিরাপাড়ার লিটন মিয়ার স্ত্রী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে রাজনীতির সাথে জড়িত হই এবং নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে বর্তমানে ওসমানীনগর থানা যুব মহিলা লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি। আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ঈর্ষান্বিত হয়ে বর্তমানে ফেসবুকে রাজা আহমেদ নামক একটি ভুয়া আইডি থেকে আমার ছবি ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরণের আজে-বাজে লেখা পোস্ট করছে। এতে আমি নিজে যেমন মানসিকভাবে নির্যাতনের শিকার, তেমনি আমার পরিবার, আত্মীয়স্বজন, এমনকি দলীয় নেতৃবৃন্দের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ণ হচ্ছে।

তিনি বলেন, ৪ বছর আগেও এমনটি করেছিল একটি মহল। তখনো সংবাদ সম্মেলনে আমি আমার বক্তব্য রেখেছিলাম। জানিয়েছিলাম তাদের অপকর্মের কথা। এই প্রভাবশালী ব্যক্তি শুধু ফেসবুকেই নয়, ০১৬৩২৪১৯১১৬ নম্বরে হোয়াটস অ্যাপ এবং ইমো অ্যাকাউন্ট করেও একইভাবে আমার ছবি ব্যবহার করে আজে-বাজে লেখালেখি করছে। এতে আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা যেমন সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছি, তেমনি মানসিক নির্যাতনের শিকারও হতে হচ্ছে। এ ব্যাপারে আমি এ বছরের ৩ জানুয়ারি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের শাহপরান থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেছি ( নম্বর-১৬৩)।

তিনি বলেন, আমার বড়ভাই ইউসুফ আলী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি করেন। তাকেও তারা প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনিও একটি জিডি করেছেন।

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন, এই প্রতিপক্ষ যখন তখন তার বা তার পরিবারের সদস্যদের ক্ষতি করতে পারে। এমনকি প্রাণনাশের মতো ঘটনাও ঘটাতে পারে তারা। এ ব্যাপারে কলসুমা আক্তার রানী চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীসহ সিলেটের প্রশাসন ও সংসদ সদস্যদের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

শান্তিবার্তা ডটকম/১০ নভেম্বর ২০২০