শিরোনাম


Spread the love

ডেস্ক নিউজঃ

বিশ্বজুড়ে নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ৭৫ বছর বয়সী জাতিসংঘের বিশ্বাসযোগ্য এবং কার্যকর রোডম্যাপ প্রণয়ন করা উচিত বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একই সঙ্গে ভূরাজনৈতিক বিরোধে জাতিসংঘকে দুর্বল করা চলবে না বলেও মত দেন তিনি। জাতিসংঘকে একটি কার্যকর বিশ্ব সংস্থা হিসেবে দেখার আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় জাতিসংঘের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পূর্বে ধারণকৃত এক ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন।

জাতিসংঘের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা এবং বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে শান্তি রক্ষা মিশনে সেনা ও পুলিশ সদস্য মোতায়েনে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। সংঘাত কবলিত দেশগুলোতে শান্তি সমুন্নত রাখতে বাংলাদেশের দেড় শতাধিক শান্তিরক্ষী জীবন উৎসর্গ করেছেন।

করোনা পরিস্থিতির বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মহামারিসহ বর্তমান সময়ের নানা সংকট ভিশন ২০৩০ অর্জনকে আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং করে তুলেছে। এছাড়া এই মহামারি আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংকট সামনে এনেছে। একই সঙ্গে এই মহামারি দেখিয়েছে যে, উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর অন্য যে কোনও সময়ের চেয়ে এই মুহূর্তে জাতিসংঘকে বেশি প্রয়োজন। প্রমাণ হয়েছে বহুপাক্ষিকতাই সামনে এগিয়ে যাওয়ার একমাত্র পথ।’

শেখ হাসিনা তার ভাষণে বলেন, ইতিহাসে নানা সময় মানব সভ্যতার পথ পরিবর্তনের মুহূর্ত হিসেবে এসেছে। জাতিসংঘের ৭৫ বছর পূর্তি সেই রকম আরেকটি মূহূর্ত হিসেবে উপস্থিত হয়েছে।

শান্তিবার্তা ডটকম/২২ সেপ্টেম্বর ২০২০