শিরোনাম


ডেস্ক নিউজঃ

লেখক, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষক, মুক্তিযোদ্ধা ও হাওর আন্দোলন নেতা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেছেন, করোনাকালে বড় রাজনৈতিক দলগুলোর মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নিঃসন্দেহে  প্রশংসনীয়। তবে এই মহামারীতে তাঁদের আরও বেশি মানুষের কাছে যাওয়ার যে সুযোগ ছিল। কিন্তু সেটা আমাদের কাছে পরিলক্ষিত হয়নি। সবাইকে নিয়ম রক্ষার কর্মসূচি হাতে নিতে দেখেছি।

করোনাকালে ৯৭ ভাগ মানুষ মাস্ক ব্যবহার করছেন না। আওয়ামী লীগ, বিএনপির মতো বড় রাজনৈতিক দল ইউনিয়ন থেকে ওয়ার্ড পর্যায়ে সংগঠন রয়েছে, নেতা-কর্মী রয়েছেন। তারা যদি মাস্ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করতে কর্মসূচি হাতে নিতেন- তবে পরিস্থিতি আরও ভালো হওয়ার সুযোগ ছিল। আমরা যথেষ্ট বিপদমুক্ত থাকতে পারতাম। কিন্তু দুঃখজনক হলো, তাঁরা এই সুযোগটা কাজে লাগাননি। তিনি আরও বলেন, গণমানুষের কাছে রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের আলাদা একটা প্রভাব রয়েছে। করোনার বিস্তার রোধে এই সম্পর্ককে ইতিবাচকভাবে কাজে লাগানোর সুযোগ রয়েছে।

আগে নানা সামাজিক ইস্যুতে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা মানুষের পাশে যেতেন, সেই ধারাবাহিকতা এখন আর নেই। করোনাকালে হারিয়ে যাওয়া সেই রাজনৈতিক সংস্কৃতি পুনরুজ্জীবিত করতে পারত বড় দলগুলো। তিনি বলেন, করোনভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তায় সমাজের বয়স্ক মানুষজন। তাদের মনোবল বৃদ্ধি করতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা জরুরি। এক্ষেত্রে রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণে সাধারণ মানুষকে আরও বেশি উদ্বুদ্ব করতে পারতেন।

শান্তিবার্তা ডটকম/১০ সেপ্টেম্বর ২০২০/BDP