শিরোনাম


Spread the love

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

সিলেট নগরীর শিবগঞ্জ সোনারপাড়ায় স্বপ্না বেগম (১৬) নামের এক তরুণী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে নগরীর শাহজালাল উপশহর আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী এবং পশ্চিম সোনারপাড়া এলাকার ফরিদ ডাক্তারের কলোনীর বাসিন্দা অটোরিকশা চালক আব্দুল করীমের মেয়ে।

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে এ আত্মহননের ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, গত বছর খালাতো ভাই ওমান প্রবাসী মামুনের সঙ্গে স্বপ্না বেগমের বিয়ে ঠিক হয়। স্বপ্নার বয়স কম হওয়ায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয়নি। প্রায়ই ফোনে হবু বর এর সাথে যোগাযোগ করতো স্বপ্না বেগম। বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রতি দিনের মতো ফোনে কথা বলছিল স্বপ্না। এ সময় স্বপ্নার মা ফোন রেখে রান্না করার জন্য বলেন। কিন্তু মায়ের কথা না শুনে স্বপ্না ফোনে কথা বলতে থাকে। এক পর্যায়ে স্বপ্নার মা ধমক দিয়ে ফোন কেড়ে নেন।

এ কারণে স্বপ্না জেদ ধরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের ফ্যানের হুকের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে জানান তরুণীর ভাই মাদ্রাসাছাত্র মো. সুজন আহমদ। খবর পেয়ে উপশহর ফাঁড়ির পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে।

এ ব্যাপারে শাহপরান থানার ওসি আব্দুল কাইয়ূম চৌধুরী বলেন- সকাল সাড়ে ১১ টায় এক মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠাই। থানায় অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

শান্তিবার্তা ডটকম/৯ সেপ্টেম্বর ২০২০