শিরোনাম
  সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ       আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ       নারী দিবসের সংগ্রামী ইতিহাস- শেখ একেএম জাকারিয়া       ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় তাহিরপুরে তিন মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন       তাহিরপুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টারে ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন       বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ- শেখ একেএম জাকারিয়া       ব্যাংক এশিয়া লি. পৌর ডিজিটাল সেন্টার এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন       টেস্ট খেলতে ১২ এপ্রিল শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ দল       শিক্ষকদের কবে টিকা নিতে হবে, জানাল মাউশি       তাহিরপুরে হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ হয়েছে ৮০ ভাগ, দাবি সুনামগঞ্জ পাউবোর    


মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের লাখাইছড়া চা বাগান থেকে স্বাক্ষর দেব (১৮) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার ইছবপুর এলাকার বাসিন্দা।

রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় লাখাইছড়া চা বাগানে মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

নিহত স্বাক্ষর দেবের বাবা কল্যান দেব উত্তর ভাড়াউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। সে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এর আগে শনিবার বিকেলে সে নিখোঁজ হয়। শনিবার রাতে স্বাক্ষরের বাবা কল্যান দেব জানিয়েছিলেন, শনিবার বিকেলে স্বাক্ষর দেব তার মাকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা ছিলো। সে বাসা থেকে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বের হয়। কিছুক্ষণ পর ৫টার দিকে তার মা তার ফোন নাম্বারে কল করলে অন্য একজন ফোন রিসিভি করে। স্বাক্ষর কোথায় বললে অপর পাশ থেকে ‘স্বাক্ষর কে? স্বাক্ষর নামে কেউ নাই’ বলে ফোন রেখে দেয়।’ এরপর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি।

এদিকে পরিবারের লোকেরা স্বাক্ষরকে না পেয়ে পাড়া প্রতিবেশীদের নিয়ে সারারাত ধরে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় খোজখবর করে। রাত ১১টার দিকে স্বাক্ষরের বাবা বাদী হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরী করেন শ্রীমঙ্গল থানায়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে ও রাত সাড়ে ১১ টার দিকে দুই বার তার ব্যবহৃত মুঠোফোন ট্রেকিং করা হয়। একবার তাকে ভানুগাছ রোডে ও অন্যবার ষাড়ের গজ এর দিকে দেখানো হয়। পুলিশ ও এলাকাবাসী তাতে তন্ন তন্ন করে খুঁজেছে ঐ এলাকাগুলোতে।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুছ ছালেক বলেন, নিহত স্বাক্ষর দেব গতকাল শনিবার বিকেল হতে নিখোঁজ ছিলো। পুলিশসহ স্থানীয় লোকজন শনিবার বিকেল থেকে সারা রাত অনেক খোজাঁখোজি করার পরও তাকে পাওয়া যায়নি। আমরা রাতে অনেক চেষ্টা করেছি তাকে খুঁজে বের করার। রোববার ভোর সকালে লাখাইছড়া চা বাগানে শ্রমিকরা একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে আমাদের ফোন দিলে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। এখন এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটি বলা যাচ্ছে না। মৌলভীবাজার থেকে পিবিআই ও সিলেট থেকে সিআইডির স্পেশাল টিম ঘটনাটির আলামত সংগ্রহ করছে। আমরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছি। রহস্য শিরগির উন্মোচন হবে।

শান্তিবার্তা ডটকম/৩০ আগস্ট ২০২০