শিরোনাম
  শ্রীমঙ্গল লাখাইছড়া চা বাগান থেকে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার       আজ পবিত্র আশুরা, থাকছে না তাজিয়া মিছিল       সিলেট বিভাগে দুই ল্যাবে আরও ৫২ জনের করোনা শনাক্ত       সুনামগঞ্জে শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ       তাহিরপুরে দুর্যোগ মোকাবেলায় দক্ষতা বৃদ্ধিতে কর্মশালা       শর্ত সাপেক্ষে ১ সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় গণপরিবহণ- ওবায়দুল কাদের       সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সকল ইউনিট কমিটির সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার জন্য অনুমতি প্রদান       ওজন কমাতে রাতে যে ৩ পানীয় পান করবেন       কলার মোচার এই উপকারিতাগুলো জানতেন?       করোনায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২১৩১    


মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের লাখাইছড়া চা বাগান থেকে স্বাক্ষর দেব (১৮) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার ইছবপুর এলাকার বাসিন্দা।

রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় লাখাইছড়া চা বাগানে মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

নিহত স্বাক্ষর দেবের বাবা কল্যান দেব উত্তর ভাড়াউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। সে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এর আগে শনিবার বিকেলে সে নিখোঁজ হয়। শনিবার রাতে স্বাক্ষরের বাবা কল্যান দেব জানিয়েছিলেন, শনিবার বিকেলে স্বাক্ষর দেব তার মাকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা ছিলো। সে বাসা থেকে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বের হয়। কিছুক্ষণ পর ৫টার দিকে তার মা তার ফোন নাম্বারে কল করলে অন্য একজন ফোন রিসিভি করে। স্বাক্ষর কোথায় বললে অপর পাশ থেকে ‘স্বাক্ষর কে? স্বাক্ষর নামে কেউ নাই’ বলে ফোন রেখে দেয়।’ এরপর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি।

এদিকে পরিবারের লোকেরা স্বাক্ষরকে না পেয়ে পাড়া প্রতিবেশীদের নিয়ে সারারাত ধরে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় খোজখবর করে। রাত ১১টার দিকে স্বাক্ষরের বাবা বাদী হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরী করেন শ্রীমঙ্গল থানায়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে ও রাত সাড়ে ১১ টার দিকে দুই বার তার ব্যবহৃত মুঠোফোন ট্রেকিং করা হয়। একবার তাকে ভানুগাছ রোডে ও অন্যবার ষাড়ের গজ এর দিকে দেখানো হয়। পুলিশ ও এলাকাবাসী তাতে তন্ন তন্ন করে খুঁজেছে ঐ এলাকাগুলোতে।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুছ ছালেক বলেন, নিহত স্বাক্ষর দেব গতকাল শনিবার বিকেল হতে নিখোঁজ ছিলো। পুলিশসহ স্থানীয় লোকজন শনিবার বিকেল থেকে সারা রাত অনেক খোজাঁখোজি করার পরও তাকে পাওয়া যায়নি। আমরা রাতে অনেক চেষ্টা করেছি তাকে খুঁজে বের করার। রোববার ভোর সকালে লাখাইছড়া চা বাগানে শ্রমিকরা একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে আমাদের ফোন দিলে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। এখন এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটি বলা যাচ্ছে না। মৌলভীবাজার থেকে পিবিআই ও সিলেট থেকে সিআইডির স্পেশাল টিম ঘটনাটির আলামত সংগ্রহ করছে। আমরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছি। রহস্য শিরগির উন্মোচন হবে।

শান্তিবার্তা ডটকম/৩০ আগস্ট ২০২০