শিরোনাম
  দুই মাস পর করোনা শনাক্ত আবারও হাজারের ঘরে       ইতালি যাওয়ার পথে ক্রোয়েশিয়ায় অতিরিক্ত ঠান্ডায় ছাতকের ২ যুবকের মৃত্যু       প্রিয়া যদি হয়- আলমগীর তালুকদার       বর্ধিত সময়েও হাওরে বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ার প্রতিবাদে তাহিরপুরে মানববন্ধন       সিলেটে বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু’র শোক সভা অনুষ্ঠিত       অপরিকল্পিত নলজুর নদী খনন কার্যক্রম পরিদর্শনে বেলা       দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ছাতক প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন মোশাররফ হোসেন       গণগ্রন্থাগারে সরকারি অনুদান বাড়ানোর দাবি       ফারমিছ আক্তারকে ‘নির্ভীক নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ প্রদান       সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ    


ইংরেজিতে বলা হয় ব্যানানা ফ্লাওয়ার, বাংলায় আমরা চিনি কলার মোচা নামে। এটি কিন্তু সবজি হিসেবে পরিচিত। এটি শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। কলার মোচা দিয়ে তৈরি নানা উপাদেয় খাবার বাঙালি রান্নার অংশ। কলার মোচা খেতে যদি পছন্দ করে থাকেন, তবে আপনার জন্য সুখবর। কলার মোচা পুষ্টিগুণে ভরপুর। আর এই পুষ্টিকর খাবার নিয়মিত খেলে মিলবে অনেক উপকার।

কলার মোচার মধ্যে থাকা বিভিন্ন উপাদান পুষ্টিগুণে ভরপুর। এর মধ্য়ে কী কী থাকে, একবার দেখে নেয়া যাক। কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ফ্যাট, ফাইবার, ক্যালসিয়ান, ফসফরাস, আয়রন, কপার, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন ই দ্বারা সমৃদ্ধ কলার মোচা। এক কথায় প্রাকৃতিক ওষুধের মতো কাজ করে এটি। কলার মোচার উপকারিতার কথা প্রকাশ করেছে পপস্কো ডটকম।

ইনফেকশন প্রতিরোধ করে
কলার মোচায় থাকা উপাদান জীবাণুর সঙ্গে লড়াই করার শক্তি জোগায়। এটি ম্যালেরিয়ার ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। গবেষণায় প্রমাণ পাওয়া গেছে যে, মোচা শরীরে কোনোরকম পরজীবি ব্যাকটেরিয়াকে জন্মাতে দেয় না। ফলে শরীর সুস্থ থাকে।

ক্যান্সার দূরে রাখে
শরীরে ফ্রি রেডিক্যাল এর উপস্থিতি বিভিন্ন রকম রোগের কারণ হতে পারে। কলার মোচার নির্যাস অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। কলার মোচার উপকারিতা অনেক। বয়স হলে ত্বকে বলিরেখা পরার হাত থেকে রক্ষা করে। প্রাথমিকভাবে ক্যান্সারকেও দূরে রাখতে সাহায্য করে মোচা।

ডায়েবেটিস এবং অ্যানিমিয়া নিয়ন্ত্রণ করে
ডায়াবেটিস এখন পরিচিত একটি সমস্যা। আবার অনেক নারী অ্যানিমিয়াতেও ভোগেন। আর এই দুই ক্ষেত্রেই কলার মোচার উপকারিতা অপরিসীম। রক্তে চিনির পরিমাণ কমাতে এটি অতুলনীয়, আবার শরীরের হিমোগ্লোবিনের মাত্রাও বাড়িয়ে দেয়। যার ফলে অ্যানিমিয়া দূরে থাকে।

ঋতুস্রাবের সমস্যা দূর করে
ঋতুস্রাব চলাকালীন বেশি রক্তপাতের সমস্যায় ভোগেন অনেক নারী। এতে শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে। এসময় ব্যথাও কাবু করে ফেলে। এসবের সহজ সমাধান হতে পারে মোচা। প্রতিদিন অন্তত এককাপ করে রান্না করা মোচা খেতে পারেন। এর সঙ্গে দই মিশিয়ে খেলে আরও ভালো উপকার পাবেন। কলার মোচা দেহে প্রজেস্টেরন হরমোনের বৃদ্ধি ঘটায়। যার ফলে ঋতুকালীন সময়ে রক্তপাত কম হয়।

উদ্বেগ নিয়ন্ত্রণে রাখে
আপনার যদি মুড সুইংয়ের সমস্যা থাকে অথবা নানারকম বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন, তাহলে আজ থেকেই ডায়েটে রাখুন কলার মোচা। কারণ এটি মুড সুইং নিয়ন্ত্রণ করে উদ্বেগ কমাতে সাহায্য করে। অ্যান্টি ডিপ্রেশনের জন্য আলাদা করে কোনো ওষুধ খাওয়ার দরকার নেই।

ভিটামিনের উৎস
ভিটামিন এ, সি এবং ই ভরপুর থাকে কলার মোচায়। রয়েছে ফাইবারও। সুস্থ থাকতে প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখুন কলার মোচা। বহু সমস্যায় চিকিৎসকেরাও ওষুধের পাশাপাশি ডায়েট হিসেবে মোচার উল্লেখ করেন।

শান্তিবার্তা ডটকম/২৯ আগস্ট ২০২০/ সূত্র জাগো নিউজ