আমার বলতে কিছুই নাই
সব অন্যের দান
হাত পা চোখ কান নাক মুখ
সুন্দর দেহ প্রাণ।

তরল ছিলাম, অবয়ব দিলেন
অন্ধ প্রকোষ্ঠ ঘরে
আলো বাতাস ছাড়াই রাখলেন
মায়া মমতার ডোরে।

সময় হলে পাঠিয়ে দিলেন
ক্ষণিকের এ দুনিয়ায়
নড়াচড়া চলা ফেরায় তখন
ছিলাম কত অসহায়!

ধীরে ধীরে বড় করলেন
তাঁরই অসীম দয়ায়
জ্ঞান বুদ্ধি বিবেক দিয়ে
ছেড়ে দিলেন দুনিয়ায়।

শক্তি সামর্থ্য সবই দিলেন
দেখালেন আলোর পথ
ভুলে গেলাম দুনিয়ার ভালবাসায়
তাঁর সব নিয়ামত।

শ্রেষ্ঠত্বের মর্যাদা ভুলে গিয়ে
ধরলাম শয়তানের পথ
শ্বাশত বিধান অস্বীকার করে
হয়ে গেলাম অসৎ।

অন্যায় জুলুম অত্যাচার করে
নিলাম ক্ষমতার সিংহাসন
বাড়ি গাড়ি সম্পদের পাহাড়
আরো যে কত ধন!

অর্থ বিত্ত ক্ষমতার দাপটে
ভুলে গেলাম তাঁরে
সময় ফুরালে ধীরে ধীরে
শরীরে ভাঁজ ধরে!

শক্তি মত্তা কমে আসে
চোখে ভাসে আঁধার
বিছানায় শুয়ে নিরবে কাঁদে
করে শুধু হাহাকার!

টাকা পয়সা ধন দৌলত
সবই থাকবে পড়ে
স্ত্রী পুত্র শত আপনজন রেখে
হঠাৎ যাবে মরে!

হিসাব নিকাশ কড়ায় গন্ডায়
বুঝে নিবেন মহাজন
শাস্তি থেকে রেহাই পাবে না
যতই কর বিরুদ্ধাচারণ।

শান্তিবার্তা ডটকম/২৮ আগস্ট ২০২০/ মাসুদ