শিরোনাম


ডেস্ক নিউজঃ

রবিবার সভা ডেকেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বর্তমান কমিশনের ৬৮তম এ সভায় পাবনা-৪ ও ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনের তফসিলের সিদ্ধান্ত হবে। এ ক্ষেত্রে রবিবারই উপনির্বাচন দু’টির তফসিল ঘোষণা হতে পারে। এছাড়া শূন্য হওয়া নওগাঁ-৬ আসনে তফসিল এ দিন হতে পারে। তবে ঢাকা- ৫ এবং সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপনির্বাচনের তফসিল আপাতত হচ্ছে না। এ উপনির্বাচন দু’টির তফসিল আগামী মাসের মাঝামাঝি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কমিশন ২৩ আগস্ট বেলা ৩টায় অনুষ্ঠেয় বৈঠকের নোটিশ ইতোমধ্যে সরবরাহ করেছে। কমিশন সূত্র জানায়, সভায় তিনটি আলোচ্যসূচি রয়েছে। এগুলো হলো—১. জাতীয় সংসদের ৭১ পাবনা-৪ ও ১৯১ ঢাকা-১৮ এর নির্বাচন অনুষ্ঠান ও অন্যান্য শূন্য আসনের নির্বাচন, ২. স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের স্থগিত, মেয়াদোত্তীর্ণ ও শূন্যপদের নির্বাচন অনুষ্ঠান সংক্রান্ত এবং ৩. বিবিধ।

এ দিকে নির্বাচন কমিশন শূন্য আসনে উপনির্বাচনের উদ্যোগ নিলেও দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপির নির্বাচন বিষয়ক কোনও তৎপরতা চোখে পড়েনি। তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ শূন্য হওয়া পাঁচটি  সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের কার্যক্রম ইতোমধ্যে শুরু করেছে। এসব আসনের উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ফরম বিতরণ করছে। আগামীকাল রবিবার পর্যন্ত ফরম সংগ্রহ ও মনোনয়ন কার্যক্রম চলবে। এরপর দলের পার্লামেন্টারি বোর্ডের সভায় দলীয় প্রার্থিতা চূড়ান্ত করা হবে। আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচন কমিশন একইসঙ্গে সবগুলো আসনের উপনির্বাচন না করলেও আওয়ামী লীগ সবগুলো আসনের জন্য তাদের দলীয় প্রার্থী ঠিক করে রাখবে।

সংসদ সদস্যদের মৃত্যুজনিত কারণে শূন্য হওয়া এ পাঁচটি আসনের মধ্যে পাবনা-৪ ও ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রথম ৯০ দিন ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। করোনা সংক্রমণজনিত দ্বৈবদুর্বিপাকের কারণে নির্বাচন কমিশন আগেই জানিয়ে দিয়েছে এ দুটি আসনের উপনির্বাচন দ্বিতীয় ৯০ দিনে হবে, যে সময়টি এখন চলমান। সিরাজগঞ্জ-১ আসনের প্রথম নব্বই দিন সময়কালের প্রথম নব্বই দিন শেষ হওয়ার পথে। এই আসনের উপনির্বাচনও দ্বিতীয় ৯০ দিনে হবে বলে ইসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে, ঢাকা-১৮ এবং নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রথম ৯০ দিন এখনও চলমান রয়েছে।

এ দিকে আগামীকালের কমিশন সভা ছাড়াও চলতি সপ্তাহে আরও দুটি সভা করবে নির্বাচন কমিশন। সোমবার ২৪ আগস্ট সকাল ১১টায় অনুষ্ঠেয় কমিশনের ৬৯তম সভায় এজেন্ডায় স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান নির্বাচন পরিচালনা আইনের খসড়া অনুমোদন এবং ২৬ আগস্ট বুধবার সকালে অনুষ্ঠেয় ৭৯তম কমিশন সভায় রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন আইন-২০২০ এর বিষয়ে প্রাপ্ত মতামতের ওপর আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয়টি রয়েছে।

শান্তিবার্তা ডটকম/২২ আগস্ট ২০২০/ বাট্রি