ডেস্ক নিউজঃ

তিন হাজার ৪৬১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা ব্যয়ে সাতটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এর মধ্যে সরকার দেবে দুই হাজার ৬১৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা, বিদেশি ঋণ ৫৮১ কোটি ২০ লাখ এবং বিশ্ব ব্যাংকের অনুদান ২৬০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব প্রকল্পের অনুমোদন দেন।

সভা শেষে এ বিষয়ে ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানান, আজকের একনেক সভায় গভীর সমুদ্রে টুনা মাছ আহরণে ৬১ কোটি ৬ লাখ টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। চলতি মাস থেকে ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

একনেক সভায় বিশ্বব্যাংকের ‘ইমার্জেন্সি মাল্টি-সেক্টর রোহিঙ্গা ক্রাইসিস রেসপন্স’ প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে পরামর্শকের পকেটেই যাচ্ছে ২৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা। প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ৫৯৯ কোটি ২০ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ৪ কোটি ২০ লাখ টাকা এবং বিশ্বব্যাংকের অনুদান থেকে ৫৯৫ কোটি টাকা ব‌্যয় করা হবে।

৮৪৮ কোটি টাকার ‘বারৈয়ারহাট-হোঁয়াকো রামগড় সড়ক প্রশস্তকরণ’ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। খুলনা সড়ক জোনের আওতাধীন বেইলি সেতুর স্থলে কংক্রিট সেতু নির্মাণ প্রকল্প অনুমোদন পেয়েছে। অনুমোদিত কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ প্রকল্পে ব্যয় হবে ৫৩১ কোটি টাকা।

৭১২ কোটি টাকার ‘তেঁতুলিয়া নদীর ভাঙন থেকে পটুয়াখালীর বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপাশা রক্ষা প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে একনেক সভায়। দাউদকান্দি-গোয়ালমারী মহাসড়কের মান উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ৫৩০ কোটি টাকা।

শান্তিবার্তা ডটকম/১৮ আগস্ট ২০২০