শিরোনাম


ডেস্ক নিউজঃ

কুড়িগ্রামে বিআরটিসি বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন দুজন।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকালে কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়কের দাসেরহাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- আকবর হোসেন (৫৯), বেলাল হোসেন (২৬), বিলকিস বেগম (৪৫) ও প্রাইভেটকার চালক দেলবর। আহত হয়েছেন আয়শা সিদ্দিকা (১৪) ও প্রাইভেটকারের হেলপার। নিহত আকবর হোসেন নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা। তাদের গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার পাচপীর এলাকায়।

পুলিশ জানায়, কুড়িগ্রাম থেকে ছেড়ে যাওয়া বিআরটিসির একটি বাসের সঙ্গে নরসিংদী থেকে কুড়িগ্রামগামী একটি প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারের চালক দেলবর হোসেন নিহত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে বাবা আকবর হোসেন ও ছেলে বেলাল হোসেন মারা যায়। আর হাসপাতালে নেওয়ার পর মা বিলকিস বেগমের মৃত্যু হয়। এছাড়া নিহত আকবর হোসেনের মেয়ে আয়শা সিদ্দিকা ও প্রাইভেটকারের হেলপার মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আয়শা সিদ্দিকাকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কুড়িগ্রাম সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারের চালক মারা যায়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে বাবা ও ছেলের মৃত্যু হয়। আর মায়ের মৃত্যু হয় হাসপাতালে নেওয়ার পর।

তবে বিআরটিসি বাসের চালক সম্পর্কে কোনো কিছু জানাতে পারেনি ওসি আনোয়ারুল।

শান্তিবার্তা ডটকম/১৩ আগস্ট ২০২০