শিরোনাম
  দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ছাতক প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন মোশাররফ হোসেন       গণগ্রন্থাগারে সরকারি অনুদান বাড়ানোর দাবি       ফারমিছ আক্তারকে ‘নির্ভীক নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ প্রদান       সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ       আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ       নারী দিবসের সংগ্রামী ইতিহাস- শেখ একেএম জাকারিয়া       ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় তাহিরপুরে তিন মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন       তাহিরপুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টারে ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন       বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ- শেখ একেএম জাকারিয়া       ব্যাংক এশিয়া লি. পৌর ডিজিটাল সেন্টার এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন    


জগন্নাথপুর সংবাদতাতাঃ

জগন্নাথপুর-সিলেট সড়কটি দীর্ঘদিন থেকে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। এমন বাস্তবতায় প্রায়ই ঘটছে নানা দুর্ঘটনা। বিশেষ করে এ সড়ক দিয়ে রোগীদের যাতায়াতে ভোগান্তির শেষ নেই।

সর্বশেষ জগন্নাথপুর-সিলেট সড়কের করুণ দশার কারণে গাড়ির ঝাঁকুনিতে পথিমধ্যেই এক প্রসূতি মায়ের সন্তান প্রসব হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে জগন্নাথপুর পৌর এলাকার বটেরতল নামক স্থানে।

স্থানীয়রা জানান- শুক্রবার (৭ আগস্ট) সকাল ৯ টায় উপজেলা পাইলগাঁও ইউনিয়নের চকরিয়া গ্রামের বিজয় দাসের গর্ভবতী স্ত্রী ঝর্না রানী দাস (৩০) প্রসব যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন। এ অবস্থায় স্বজনরা তাকে নিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে জগন্নাথপুর হাসপাতাল কমপ্লেক্সে ভর্তির জন্য রওয়ানা দেন। কিন্তু গাড়ির অতিমাত্রার ঝাঁকুনিতে পথিমধ্যেই ঝর্না রানীর সন্তান প্রসব হয়ে যায়। তখন পথচারীদের সহযোগিতায় রাস্তায় কাপড় টাঙ্গিয়ে ডেলিভারি কাজ সম্পন্ন করা হয়। পরবর্তীতে জগন্নাথপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে মা ও নবজাতক শিশুকে চিকিৎসা করানো হয়।

ঝর্না রানীর স্বামী বিজয় দাস দুঃখ প্রকাশ করে বলেন- আমার স্ত্রী প্রসব বেদনায় ছটফট করছিল। কিন্তু সড়কের বেহাল দশা ও বড় বড় গর্ত থাকায় বটেরতল নামক স্থানে আমার স্ত্রীর গর্ভপাত হয়ে যায়। বড় দুর্ঘটনা থেকে স্ত্রী ও নবজাতক সন্তান বেঁচে গেলেও আরও অনেকেও এরকম দুর্ঘটনা পড়তে পারে।

এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মধুসুধন ধর বলেন- মা ও নবজাতক শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে তাদেরকে ভর্তি করা হয়। তবে মা ও নবজাতক শিশু সুস্থ আছে।

শান্তিবার্তা ডট কম/৭ আগস্ট ২০২০