শিরোনাম
  দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ছাতক প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন মোশাররফ হোসেন       গণগ্রন্থাগারে সরকারি অনুদান বাড়ানোর দাবি       ফারমিছ আক্তারকে ‘নির্ভীক নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ প্রদান       সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ       আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ       নারী দিবসের সংগ্রামী ইতিহাস- শেখ একেএম জাকারিয়া       ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় তাহিরপুরে তিন মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন       তাহিরপুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টারে ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন       বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ- শেখ একেএম জাকারিয়া       ব্যাংক এশিয়া লি. পৌর ডিজিটাল সেন্টার এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন    


ডেস্ক নিউজঃ

মেট্রোরেল প্রকল্পের কাজে জড়িত ৭৬ কর্মীকে করোনার ভুয়া সনদ দেয়ার মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার গভীর রাতে গোপালগঞ্জ থেকে মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরই মধ্যে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে সোমবার রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট হাসপাতালের পাঁচজনের বিরুদ্ধে ভুয়া করোনার রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে মামলা হয়। সেই মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম, এমডি মাসুদ পারভেজ, হাসপাতালের এমডি মিজানুর রহমানসহ আরও দুইজনের নাম আছে। মামলাটি করেন মেট্রোরেল প্রকল্পের শ্রমিক সাপ্লাইয়ের প্রতিষ্ঠান এসিট করপোরেশন।

শনিবার গণমাধ্যমকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন উত্তরা পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইয়াদুর রহমান। তিনি বলেন, গতরাতে গোপালগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি করোনা প্রতারণার মামলায় এজাহারভুক্ত তিন নম্বর আসামি ছিলেন। এরই মধ্যে মিজানুর রহমানকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গত ৬ জুলাই রাজধানীর উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। করোনার এই দুর্যোগকালীন সময়ে নমুনা সংগ্রহ করা হলেও টেস্ট না করে ফলাফল দেয়া, হাসপাতাল পরিচালনার সনদের মেয়াদ না থাকা বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়। পরের দিন হাসপাতালটির উত্তরা ও মিরপুরের দুটি শাখা সিলগালা এবং সাহেদসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে র‌্যাব। সেই মামলায় এখন পর্যন্ত ১১জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শান্তিবার্তা ডট কম/২৫ জুলাই ২০২০