শিরোনাম
  বিধি-নিষেধ শিথিলতার মেয়াদ আর বাড়ছে না,চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত       জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাকিবের ব্যাটে বাংলাদেশের সিরিজ জয়       মাগুরায় সরকারি ভাতাভোগীর টাকা অন্যের মোবাইলে       অ্যাডভোকেট শফিকুল আলমের মৃত্যুতে পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক       পল্লীবন্ধু হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল       পাগলা বাজারে মনসুর ফ্যাশনের উদ্বোধন       নরসিংদীতে কাভার্ডভ্যান-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৬       মেসেঞ্জারে ঢাবি ছাত্রীকে হেনস্তা, তদন্ত কমিটি গঠন       সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত       ইভ্যালি’র কার্যালয়ে তালা, হটলাইনেও মিলছে না সাড়া!    


Spread the love


দীর্ঘদিন ধরে রাস্তা সংস্কার ও ব্রিজ নির্মাণের কারণে বন্ধ ছিল জিন্দাবাজার-বারুতখানা রোডে যান চলাচল। এ নিয়ে এই এলাকার মানুষদের ভোগান্তি চরম রূপ নিয়েছিল। অনেকেরই ব্যবসা-বাণিজ্য লাটে ওঠে।

অনেকেই বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে দোকান। এরপর আসলো করোনাকাল। কিন্তু ব্রিজ নির্মাণ শেষ করে রাস্তা মেরামত করতে ভুলে যায় সিলেট সিটি কর্পোরেশন। তাদের দায়িত্বজ্ঞানকাণ্ডের কারণে এ সড়ক দিয়ে চলাচলরত হাজার হাজার মানুষকে অনেক কষ্ট পোহাতে হয়।

বিষয়টি নজরে পড়লে রবিবার রাতে নিজেই শ্রমিক নিয়ে এই রাস্তা মেরামত করতে নামেন সিলেটের নারী উদ্যোক্তা ও সমাজকর্মী ফারমিস আক্তার। রাত ১২টার দিকে তিনি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও কয়েকজন শ্রমিক নিয়ে রাস্তার এই ভাঙ্গা অংশ মেরামত করেন। তিনি নগরীর মীরের ময়দান এলাকার হোটেল ফারমিস গার্ডেনের সত্ত্বাধিকারী।

এ ব্যপারে ফারমিস আক্তার বলেন, রবিবার সকালে তিনি এই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় দেখেন তিনজন মহিলা একটি রিক্সা দিয়ে এই কালভার্ট অতিক্রম করছেন। কিন্তু চালক তাদের নিয়ে উঠতে পারছে না, এতে দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। পরে তারা রিকশা থেকে নেমে হেটে কালভার্ট পের হন। এসময় রিকশায় কোন বৃদ্ধ মানুষ থাকলে সেটি অনেক কষ্টের হত। এই কথা চিন্তা করে রাতে তিনি মেরামত সামগ্রী ও শ্রমিকদের নিয়ে এই রাস্তা মেরামতে নামেন।

তার এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে সিলেটের অনেকেই বিষয়টি নিজেদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

শান্তিবার্তা ডট কম/১৩ জুলাই ২০২০