শিরোনাম
  সিলেটে মধ্যরাতেই রাস্তা মেরামত করলেন মানবিক সমাজকর্মী ফার্মিস আক্তার       সুনামগঞ্জে সুরমার পানি কিছুটা কমে বিপদসীমার ৩১ সেন্টিমিটার উপরে প্রবাহিত       গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৯৯ জন করোনায় আক্রান্ত,মৃত্যু ৩৯ জন       এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারে সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় স্মার্ট রান্না       সরকারি চাকরিজীবীদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ পাওয়া নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য       করোনা টেস্ট নিয়ে প্রতারণা: কে এই ডা. সাবরিনা?       বাসাবাড়িতে আর গ্যাস–সংযোগ দেবে না সরকার       ডা: সাবরিনা বরখাস্ত, স্বাস্থ্যের ডিজিকে শোকজ       বিদেশ যেতে লাগবে করোনাভাইরাসমুক্ত সনদ       সিলেট শাবির ল্যাবে ৩৪ জনের করোনা শনাক্ত    



দীর্ঘদিন ধরে রাস্তা সংস্কার ও ব্রিজ নির্মাণের কারণে বন্ধ ছিল জিন্দাবাজার-বারুতখানা রোডে যান চলাচল। এ নিয়ে এই এলাকার মানুষদের ভোগান্তি চরম রূপ নিয়েছিল। অনেকেরই ব্যবসা-বাণিজ্য লাটে ওঠে।

অনেকেই বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে দোকান। এরপর আসলো করোনাকাল। কিন্তু ব্রিজ নির্মাণ শেষ করে রাস্তা মেরামত করতে ভুলে যায় সিলেট সিটি কর্পোরেশন। তাদের দায়িত্বজ্ঞানকাণ্ডের কারণে এ সড়ক দিয়ে চলাচলরত হাজার হাজার মানুষকে অনেক কষ্ট পোহাতে হয়।

বিষয়টি নজরে পড়লে রবিবার রাতে নিজেই শ্রমিক নিয়ে এই রাস্তা মেরামত করতে নামেন সিলেটের নারী উদ্যোক্তা ও সমাজকর্মী ফারমিস আক্তার। রাত ১২টার দিকে তিনি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও কয়েকজন শ্রমিক নিয়ে রাস্তার এই ভাঙ্গা অংশ মেরামত করেন। তিনি নগরীর মীরের ময়দান এলাকার হোটেল ফারমিস গার্ডেনের সত্ত্বাধিকারী।

এ ব্যপারে ফারমিস আক্তার বলেন, রবিবার সকালে তিনি এই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় দেখেন তিনজন মহিলা একটি রিক্সা দিয়ে এই কালভার্ট অতিক্রম করছেন। কিন্তু চালক তাদের নিয়ে উঠতে পারছে না, এতে দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। পরে তারা রিকশা থেকে নেমে হেটে কালভার্ট পের হন। এসময় রিকশায় কোন বৃদ্ধ মানুষ থাকলে সেটি অনেক কষ্টের হত। এই কথা চিন্তা করে রাতে তিনি মেরামত সামগ্রী ও শ্রমিকদের নিয়ে এই রাস্তা মেরামতে নামেন।

তার এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে সিলেটের অনেকেই বিষয়টি নিজেদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

শান্তিবার্তা ডট কম/১৩ জুলাই ২০২০