শিরোনাম
  বিধি-নিষেধ শিথিলতার মেয়াদ আর বাড়ছে না,চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত       জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাকিবের ব্যাটে বাংলাদেশের সিরিজ জয়       মাগুরায় সরকারি ভাতাভোগীর টাকা অন্যের মোবাইলে       অ্যাডভোকেট শফিকুল আলমের মৃত্যুতে পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক       পল্লীবন্ধু হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল       পাগলা বাজারে মনসুর ফ্যাশনের উদ্বোধন       নরসিংদীতে কাভার্ডভ্যান-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৬       মেসেঞ্জারে ঢাবি ছাত্রীকে হেনস্তা, তদন্ত কমিটি গঠন       সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত       ইভ্যালি’র কার্যালয়ে তালা, হটলাইনেও মিলছে না সাড়া!    


Spread the love

ডেস্ক নিউজঃ

সিলেটের বিশ্বনাথে সোমবার এক স্বাস্থ্যকর্মীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। উপজেলার বাইশঘর কমিউনিটি ক্লিনিকের এই স্বাস্থ্যকর্মীর স্থানীয় মাছুখালি বাজারে একটি ফার্মেসি রয়েছে। সোমবার করোনা শনাক্তের দিনেও তিনি নিজের মালিকানার ফার্মেসিতে বসে ওষুধ বিক্রি করেছেন। এতে তার সংস্পর্শে আসা গ্রামের লোকজনের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, জ্বর হওয়ায় গত ৩১ মে করোনা পরীক্ষার জন্য ওই স্বাস্থ্যকর্মী (৩৮) নিজের নমুনা জমা দেন। নমুনা দেওয়ার প্রায় ৯দিন পর সোমবার (৮জুন) ওসমানী হাসপাতালের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা শনাক্ত হয়। মাছুকালির নওয়াগাও এলাকার বাসিন্দা ওই স্বাস্থ্যকর্মীর করোনা শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. কামরুজ্জামান।

ওই গ্রামের একাদিক ব্যক্তি জানান, গত কয়েকদিন ধরে ওই স্বকাস্থ্যকর্মী প্রতিদিন বাজারে নিজের মালিকানাধিন একে মেডিকেল হল নামক ফার্মেসিতে বসে ওষুধ বিক্রি করেছেন। এতে গ্রামের অনেকে তার সংস্পর্শে এসেছে। স্বাস্থ্যকর্মীর করোনা শনাক্তের খবর জানার পর সংস্পর্শে আসা গ্রামের লোকদের মধ্যে উদ্বেগ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে করোনা আক্রান্ত হওয়া ওই স্বাস্থ্যকর্মী বলেন, জ্বর হওয়ায় ৩১ মে আমি নমুনা জমা দেই। এরপর আমার জ্বর কমে যায় এবং নমুনার কোনো রিপোর্টও আসেনি। ফলে আমার করোনা শনাক্ত হয়নি বলেই ধরে নেই। এ কারণে ফার্মেসিতে গিয়েছিলাম।

শান্তিবার্তা ডট কম/৯ জুন ২০২০