শিরোনাম
  দুই মাস পর করোনা শনাক্ত আবারও হাজারের ঘরে       ইতালি যাওয়ার পথে ক্রোয়েশিয়ায় অতিরিক্ত ঠান্ডায় ছাতকের ২ যুবকের মৃত্যু       প্রিয়া যদি হয়- আলমগীর তালুকদার       বর্ধিত সময়েও হাওরে বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ার প্রতিবাদে তাহিরপুরে মানববন্ধন       সিলেটে বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু’র শোক সভা অনুষ্ঠিত       অপরিকল্পিত নলজুর নদী খনন কার্যক্রম পরিদর্শনে বেলা       দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ছাতক প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন মোশাররফ হোসেন       গণগ্রন্থাগারে সরকারি অনুদান বাড়ানোর দাবি       ফারমিছ আক্তারকে ‘নির্ভীক নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ প্রদান       সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ    


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ না থাকলেও গত এক মাসে সাতবার নমুনা পরীক্ষায় ‘পজিটিভ’ এসেছে এক শিক্ষার্থীর। যে কারণে তাকে পুরো একমাসই হাসপাতাল আর কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে কাটাতে হয়েছে।

ভারতের গুজরাটের বাসিন্দা ওই শিক্ষার্থীর নাম জয় পাটনি। বডোদরার নগরওয়াড়ার এলাকার এ যুবক স্থানীয় এমএস কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

কলকাতাভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, বাবা-মাকে সঙ্গে নিয়ে করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়েছিলেন জয় পাটনি। একমাস আগে করা পরীক্ষায় তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিন্তু শরীরে কোনো উপসর্গ ছিল না। এভাবে করে সাতবার তার পরীক্ষা করা হয়, সাতবারই উপসর্গ ছাড়া তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

জয় পাটনিকে গুজরাটে গোত্রী মেডিকেল অ্যন্ড হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়। সেখান থেকে পরে তাকে বডোদরা রেল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে স্থানান্তর করা হয়। জয় বলেন, ‘হাঁচি-কাশি, ক্লান্তি ভাব, মাথা ধরা কোনো সমস্যাই নেই তার। বরং প্রথমদিন থেকেই একেবারে স্বাভাবিক তিনি।

শান্তিবার্তা ডট কম/১১ মে ২০২০