শিরোনাম
  বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী- সুনামগঞ্জ আওয়ামীলীগের কর্মসূচি ঘোষণা       সুনামগঞ্জে হাওরডুবি হলে দায় প্রশাসন ও পাউবো কে নিতে হবে- হাওর বাঁচাও আন্দোলন       পিকেসিএসবিডির ট্যালেন্ট হান্ট বাছাইয়ে জাতীয় পর্যায়ে সুযোগ পেলেন ছাতকের তিন ক্রিকেটার       দক্ষিণ সুনামগঞ্জে শিমুলবাঁক ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থনে ভোটারদের মতবিনিময় সভা       দোয়ারাবাজার উপজেলায় এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু স্মরণে শোকসভা       দক্ষিণ সুনামগঞ্জে মদ, গাঁজা ও নগদ অর্থ সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক       শ্মশানের উপর দিয়ে ফসলরক্ষা বাঁধ, পিআইসি নিয়ে যত প্রশ্ন       দিরাইয়ে খাস জমি দখল নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৪০       দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে স্বেচ্ছাব্রতীরা কাজ করবে- ড. বদিউল আলম মজুমদার       নির্ধারিত সময়ে হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় হাওর বাঁচাও আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন    


শান্তিবার্তা ডেস্কঃ

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকায় আলোচিত প্রবাসী রেজোয়ান হোসেন কাজলের স্ত্রী ও তিন সন্তানের নির্মম হত্যাকাণ্ডের জড়িত সন্দেহে সুনামগঞ্জের ২ জন সহ আরও ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যার-১)।

জড়িতরা র‌্যাবের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে, তারা সবাই মাদকসেবী। প্রবাসীর ঘরে চুরির ঘটনায় তাদের চিনে ফেলায় তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে ধর্ষণ ও ছেলেসহ সবাইকে হত্যা করে তারা।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, সুনামগঞ্জের গাবি গ্রামের মো. হানিফ (৩২), সুনামগঞ্জের কাঠালবাড়ি গ্রামের মো. এলাহি মিয়া (৩৫) শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকার মো. কাজিম উদ্দিন (৫০), একই গ্রামের মো. বশির (২৬), ময়মনসিংহের ফকির পাড়া গ্রামের মো. হেলাল (৩০) ।

র‌্যাব জানায়, গত ২৩ এপ্রিল শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকার একটি ফ্ল্যাট বাড়ির দ্বিতীয় তলায় মালয়েশিয়া প্রবাসী কাজলের স্ত্রী স্মৃতি ফাতেমাসহ ওই দম্পতির মেয়ে সাবরিনা সুলতানা ওরফে নূরা (১৬), হাওয়ারিন (১৩) এবং ছেলে ফাদিলের (৮) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়। গত ২৪ এপ্রিল গৃহবধূর শ্বশুর আবুল হোসেন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে শ্রীপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

এই ঘটনায় ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব-১। এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্রীপুর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ওই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব সদস্যরা।

পরে গ্রেপ্তারকৃতদের দেওয়া তথ্যমতে, ওই প্রবাসীর ফ্ল্যাট থেকে লুটকৃত মালামাল ও আসামিদের পরিধেয় রক্তমাখা কাপড়, নগদ ৩০ হাজার টাকা, একটি হলুদ রংয়ের গেঞ্জি, জিন্স প্যান্ট, তিনটি লুঙ্গি এবং একটি আংটি উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথাও স্বীকার করেছে বলে জানায় র্যাব।

গ্রেপ্তার কাজিম উদ্দিন রিকশাচালক, হানিফ শ্রমিক, বশির অটোরিকশাচালক, হেলাল ভাঙ্গারি বিক্রেতা এবং এলাহি মিয়া শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। তারা প্রত্যেকেই মাদকসেবী। এ ছাড়া বিভিন্ন এলাকায় চুরি, ছিনতাইসহ নানাবিধ অপরাধের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জড়িত তারা। এরা সবাই জুয়াড়ি এবং হত্যাকাণ্ডের শিকার প্রবাসীর স্ত্রী যে এলাকায় থাকতেন, তাদের বাড়ি সংলগ্ন স্থানে নিয়মিত মাদক সেবন করতো ও আড্ডা দিতো।

র‌্যাব আরও জানায়, গ্রেপ্তার হওয়া কাজিম উদ্দিনের ছেলে পারভেজ আনুমানিক দেড় মাস আগে সন্ধ্যার দিকে গোপনে স্মৃতি ফাতেমার বাসায় খাটের নিচে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় ধরা পড়েছিল। সে ধর্ষণসহ হত্যা মামলার আসামি।

শান্তিবার্তা ডট কম/৩০ এপ্রিল২০২০




বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী- সুনামগঞ্জ আওয়ামীলীগের কর্মসূচি ঘোষণা

সুনামগঞ্জে হাওরডুবি হলে দায় প্রশাসন ও পাউবো কে নিতে হবে- হাওর বাঁচাও আন্দোলন

পিকেসিএসবিডির ট্যালেন্ট হান্ট বাছাইয়ে জাতীয় পর্যায়ে সুযোগ পেলেন ছাতকের তিন ক্রিকেটার

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে শিমুলবাঁক ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থনে ভোটারদের মতবিনিময় সভা

দোয়ারাবাজার উপজেলায় এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু স্মরণে শোকসভা

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে মদ, গাঁজা ও নগদ অর্থ সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

শ্মশানের উপর দিয়ে ফসলরক্ষা বাঁধ, পিআইসি নিয়ে যত প্রশ্ন

দিরাইয়ে খাস জমি দখল নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৪০

দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে স্বেচ্ছাব্রতীরা কাজ করবে- ড. বদিউল আলম মজুমদার

নির্ধারিত সময়ে হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় হাওর বাঁচাও আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন