শিরোনাম
  দুই মাস পর করোনা শনাক্ত আবারও হাজারের ঘরে       ইতালি যাওয়ার পথে ক্রোয়েশিয়ায় অতিরিক্ত ঠান্ডায় ছাতকের ২ যুবকের মৃত্যু       প্রিয়া যদি হয়- আলমগীর তালুকদার       বর্ধিত সময়েও হাওরে বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ার প্রতিবাদে তাহিরপুরে মানববন্ধন       সিলেটে বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু’র শোক সভা অনুষ্ঠিত       অপরিকল্পিত নলজুর নদী খনন কার্যক্রম পরিদর্শনে বেলা       দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ছাতক প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন মোশাররফ হোসেন       গণগ্রন্থাগারে সরকারি অনুদান বাড়ানোর দাবি       ফারমিছ আক্তারকে ‘নির্ভীক নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ প্রদান       সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদ    


ফারজানা মৃদুলাঃ করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এবং বিস্তার আজ বৈশ্বিক সমস্যা।বাংলাদেশের জনগণ ও এই মহামারী জালে আটকে আজ বিপদগ্রস্ত।বিপাকে পড়েছে মানুষ।কারোর অর্থনৈতিক, কারোর খাদ্যের সংকট, আবার কেউ কেউ মানসিক ভাবে পুরোপুরিভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। ঠিক এই সময়েই পাশে এসে সাহস জোগাতে সহযোগিতা করেছে নাট্যপরিষদ ও সাংস্কৃতিক জোট একমঞ্চে,এক লক্ষ্যে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে।

প্রতিদিন দুপুর ১২থেকে ৩টার মধ্যে মাত্র একটি ফোন কল পেলে,মুহুর্তেই খাদ্য সামগ্রী নিয়ে এই নিঃস্বার্থ মানুষ গুলো পৌঁছে যায় আপনার কিংবা আমার দোরগোড়ায়। এইটাই এই মানুষগুলোর অঙ্গীকার।এমনকি বৈরী আবহাওয়া ও তাদের এই চলার পথ রোধ করতে পারে না। আমরা হাসলেই জিতে যায় তারা।এখানেই তাদের স্বার্থকতা। এই সাংস্কৃতিক কর্মীরা কাজ করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে মানবজাতির কল্যাণে। সবজি বিতরণ সহ মাহে রমজানের শুরুতেই নিজস্ব ব্যবস্হাপনায় তৈরী ইফতার উপহার দিয়ে তাদের উদার মনের পরিচয় দিয়ে চলছেই অবিরাম । জরুরী সেবায় নিয়োজিত কয়েকটি স্থানের দায়িত্বশীল ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মী,দায়িত্বশীল পুলিশ সদস্য, বিদ্যুৎ অফিসের দায়িত্বরত সদস্য,পরিচ্ছন্নতা কর্মী সহ অনেক পথিককে ইফতার উপহার পৌঁছে দিচ্ছেন তারা।

সিলেটের সংস্কৃতিকর্মীরা যেভাবে এগিয়ে এসেছে তা নজিরবিহীন অবশ্যই প্রশংসার দাবীদার।এরই নাম মানবতা।

মূলত ২৩ মার্চ ২০২০ইংরেজি এই মানবতার প্রদর্শন এর যাত্রার শুরুটা হয় নাট্য পরিষদের উদ্যোগে মাস্ক ও জীবানু নাশক সাবান বিতরণে মাধ্যমে।তারপর থেমে না থেকে শুরু হয় তাদের পথচলাকে প্রসারিত করার মনোবাসনা।যেমন চিন্তা তেমন কাজ হয় শুরু।২৮ মার্চ থেকে খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ শুরু করে ১লা এপ্রিল থেকে ভালোবাসার খাদ্য সহায়তা পৌঁছানোর কাজ শুরু হয় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে।নিন্ম মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের কথা মাথায় নিয়েই নাট্য পরিষদ ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত একটানা এই কর্মসূচি চালিয়ে যায়। অতঃপর এই সংকটকালীন অবস্থা মোকাবেলায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সিলেট ও সম্মিলিত নাট্য পরিষদ ঐক্যবন্ধ হয়ে একযোগে শুরু করে মানবসেবার কার্যক্রম। বলা যায় এটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া । কোন ফটোশেসন নেই, নেই কোন লোকদেখানো প্রদর্শনী।নিরবে নিভৃতে করে চলছে সহযোগিতা। সম্মান জানাই এই সাংস্কৃতিক কর্মীদের না বলা মানুষ গুলোর কথাটুকু শুনে পাশে থাকার জন্য। আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাই। “জয় হোক মানবতার”এই কথাটার মূল্যায়ন যেন করে চলছেন আপন মনে স্বার্থহীন পাখির দল ।

শান্তিবার্তা ডট কম/২৮ এপ্রিল২০২০/ফারজানা মৃদুলা