শিরোনাম


Spread the love

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহর অঞ্চলে বোরো ধানের ভাল ফলন হলেও করোনা আতঙ্কে ধানকাটা শ্রমিক সংকট দেখা দেয়ায় ধান ঘরে তোলা নিয়ে শংকা দেখা দিয়েছে। জমির পাকা ধান কেটে ঘরে তুলতে পারছেন না অনেক অসহায় কৃষক। অন্যন্য বছর উত্তরাঞ্চল থেকে ধানকাটার শ্রমিক আসলেও এবার গণপরিবহন বন্ধ থাকায় তারাও আসছে না।

এদিকে লকডাউনের কারনে কর্মহীন হয়ে পড়ায় কৃষকের হাতে টাকা পয়সাও নেই। এমন প্রেক্ষাপটে বিপদগ্রস্থ কৃষকের পাশে দাড়িয়েছে ময়মনসিংহের ফুলপুরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এবং মাননীয় গৃহায়ন ওগণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপির নির্দেশে শুক্রবার ফুলপুর উপজেলার ছনধরা ইউনিয়নে বাইনজান গ্রামের একজন বর্গাচাষীর ১৫ কাঠা জমির ধান কেটে দিয়েছেন তারা।

ফুলপুর উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা দেবাশীষ তালুকদার শুভ নেতৃত্বে ৩০ থেকে ৪০ জন নেতাকর্মী ধান কাটার কাজে অংশ নেয়। ধানক্ষেত থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে কৃষক ইদ্রিস আলীর বাড়িতে মাথায় করে কাটা ধান পৌঁছেও দেন তারা। কৃষক ইদ্রিস আলী জানান, কামলা (শ্রমিক) না পেয়ে ধান কাটা যাচ্ছিল না। পাকা ধান নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা না কেটে দিলে সব ধান ক্ষেতেই নষ্ট হেয়ে যেতো। ছাত্রলীগ নেতা দেবাশীষ তালুকদার শুভ আরো বলেন, কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশ অসহায় কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে হবে। মানবিক কারণে আমরা অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিয়েছি। অসহায় কৃষকের ধানকাটা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

শান্তিবার্তা ডট কম/২৫ এপ্রিল২০২০/শাকিব মিয়া