শিরোনাম
  ইত্যাদি’র এবারে পর্বে মঞ্চ মাতাবেন সিলেটের তসিবা       বিধি-নিষেধ শিথিলতার মেয়াদ আর বাড়ছে না,চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত       জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাকিবের ব্যাটে বাংলাদেশের সিরিজ জয়       মাগুরায় সরকারি ভাতাভোগীর টাকা অন্যের মোবাইলে       অ্যাডভোকেট শফিকুল আলমের মৃত্যুতে পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক       পল্লীবন্ধু হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল       পাগলা বাজারে মনসুর ফ্যাশনের উদ্বোধন       নরসিংদীতে কাভার্ডভ্যান-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৬       মেসেঞ্জারে ঢাবি ছাত্রীকে হেনস্তা, তদন্ত কমিটি গঠন       সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত    


Spread the love

কোভিড-১৯ যা করোনা ভাইরাস নামে পরিচিত- সাম্প্রতিক সময়ে গণমাধ্যমের শিরোনামে প্রাধান্য বিস্তার করেছে। এশিয়ার বিভিন্ন অংশ এবং এর বাইরেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। সাধারণ সতর্কতা অবলম্বন করে আপনি এই ভাইরাসটির সংক্রমণ ও বিস্তারের ঝুঁকি কমিয়ে আনতে পারেন। করোনাভাইরাসের আক্রমনে জর্জরিত সারাবিশ্ব। বাংলাদেশও এই তালিকায় আছে। এই ভাইরাসের কারনে থমকে গেছে জনজীবন। ইতিপূর্ব বাংলাদেশ সরকার দেশের জনগণকে নিজ বসত ঘরে থাকার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় সারা দেশের ন্যায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জবাসীও অনেকেই নিজ বসত ঘরে অবস্থান করছেন। আবার অনেক লোক আছেন তারা অপ্রয়োজনে ও অকারণে অবাদে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে রাস্তা-ঘাটে যাতায়াত করছেন। যা দক্ষিণ সুনামগঞ্জ বাসীর জন্য হুমকি স্বরূপ। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী।

গত মঙ্গলবার(৭ এপ্রিল) দুপুরে নিজের ও অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে এ ভিডিও বার্তায় বলেন-

সম্মানীত দক্ষিণ সুনামগঞ্জবাসী

আচ্ছালামু আলাইকুম !

আমরা আপনাদের জন্য রাস্তায় আছি, আপনার ঘরে আছেন তো। আপনার জানেন বর্তমানে করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ধারণ করেছ।এই মহুর্তে আমাদের সবাইকে সতর্ক হতে হবে। সচেতন হতে হবে। আপাদের যে সচেতনতা এটাই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হাতিয়ার হিসাবে কাজ করবে। ইতিমধ্যে জানেন করোনা ভাইরাস (Covid-19) মহামারি আকারে ধারণ করায় প্রায় বিশ্বের ১৩ লাখ লোক আক্রান্ত হয়েছেন। ৭০ হাজার ৪৬৫ জন ইতিমধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন। আমাদের দেশেও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১২৩ জন। এর মধ্যে ১২ জন লোক মৃত্যুবরণ করেছেন। আমাদের এই দুর্যোগময় মুহুর্তে একসাথে কাজ করতে হবে। তাই সচেতনতাই মুল ভূমিকা হিসাবে কাজ করবে। আমি দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি হিসাবে আপনাদেরকে আজ লাইভে কিছু নির্দেশনা দিতে যাচ্ছি। আমি ও আমার টিম দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আপনাদের জন্য আপনাদেরকে ভালা রাখার জন্য। বার বার বলবো প্লীজ আপনারা ঘরে থাকুন। আমরা রাস্তায় আছি আপনাদের জন্য। আপনারা কি আমাদের জন্য ঘরে থাকতে পারছেন না, নাকি ঘরে থাকে পারবেন না। আপনাদের ঘরে থাকা আপনাদের পরিবারকে সুরক্ষিত করবে। আপনাদের ঘরে থাকা এ সমাজকে সুরক্ষিত রাখবে এবং এই দেশকে সুরক্ষিত করবে। দেখুন আমরা আপনাদের এলাকায় দিন রাত কাজ করে যাচ্ছি।আমাদের টিম গুলোও আপনাদের এলাকায় কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের প্রিয়মুখ গুলো আমার সহধর্মীনি সে চেয়ে থাকে আমরা কখন বাসায় যাবো। কিন্তু আমরা বাসায় যেতে পরিছি না। আমার ১৩ বছরে সন্তান চেয়ে আছে আমার দিকে।বাবা কখন তুমি বাসায় আসবে। আমি যেতে পারতেছি না।শুধু আপনাদের জন্য ।আমার কি ইচ্ছা হয় না ঘরে যাবার। কিন্তু আমি যাচ্ছি না। আমি ঘরে গেলে আমার কাছ থেকে আমার পরিবার করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভবনা। আপনাদের জন্য, দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য। তাই আপনারা কেন ঘরে থাকতে পারবে না। আর এই সচেতনতাই এটা হাতিয়ার হিসাবে কাজ করবে। করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ে জেতার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি, ‘আমি আর আমার পরিবার সব নিয়ম মেনে চলছি। সবাই দায়িত্ব মেনে চললে আমরা এ লড়াইয়ে জিতব।’