শিরোনাম


শান্তিবার্তা ডেস্ক::

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস লকডাউন করা হয়েছে। জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে ক্যাম্পাসে প্রবেশের সকল প্রবেশ পথ বেরিকেড দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়। বাইরে থেকে কোনো যানবাহন প্রবেশ করতে পারছে না। ক্যাম্পাসে যারা রয়েছেন তারা পরিচয়পত্র দেখিয়ে পায়ে হেঁটে প্রবেশ করতে পারছেন।

জানা গেছে, প্রক্টরিয়াল বডির নির্দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস লকডাউন করা হয়েছে। এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিত রাখতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) একাডেমিক কার্যক্রম সাময়িক বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন। গত ১৬ মার্চ নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৮ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ঢাবি সাময়িক বন্ধে ঘোষণা করা হয়। এরপর হলগুলোও সব বন্ধ করে দেওয়া হয়। ইতোমধ্যে প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা হল ত্যাগ করেছেন। শিক্ষকদেরও জরুরি কাজ অনলাইনে করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

লকডাউনে বুয়েটের ঢাকেশ্বরী আবাসিক এলাকা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্তের পর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ঢাকেশ্বরী আবাসিক এলাকা লকডাউন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক এলাকার পরিবেশ কমিটি। গতকাল সোমবার রাতে এ লকডাউনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

কমিটির সভাপতি অধ্যাপক প্রাণ কানাই সাহা ও সদস্যসচিব আ ফ ম সাইফুল আমিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘এ আবাসিক এলাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া গেছে। তাই আবাসিক এলাকার বাসিন্দাদের সার্বিক নিরাপত্তার জন্য প্রত্যেককে বাধ্যতামূলকভাবে আগামী ১৪ দিন নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করার অনুরোধ করা হলো।’

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সৌজন্যে : জাগোনিউজ ও প্রথম আলো (অনলাইন সংস্করন)